বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮

অনলাইন ডেস্ক

Feb. 23, 2021, 11:43 p.m.

'অপারেশন সুন্দরবন' ছবির টিজার
'অপারেশন সুন্দরবন' ছবির টিজার
ভোরের আলো - ছবি: সংগৃহিত

সুন্দরবনে র‌্যাবের সাফল্যগাঁথা কাহিনি নিয়ে নির্মিত ছবি 'অপারেশন সুন্দরবন' এর টিজার ও একটি ওয়েবসাইটের উন্মোচন করা হয়েছে। জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আর্মি গল্ফ ক্লাবে এগুলো উন্মোচন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ।

র‌্যাব কর্তৃক সুন্দরবন জলদস্যুমুক্ত হওয়ার প্রেক্ষিতে ২০১৮ সালের নভেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুন্দরবনকে জলদস্যু মুক্ত ঘোষণা করেন। এখন শান্তির সু-বাতাস বইছে সেখানে। অপহরণ-হত্যা এখন তিরোহিত। জেলেদের কষ্টার্জিত উপার্জনের ভাগও কাউকে দিতে হচ্ছে না। মাওয়ালী, বাওয়ালী, বনজীবী ও বন্যপ্রাণী এখন সবই নিরাপদ। এর নেপথ্যে র‌্যাবের ভূমিকা রয়েছে, যা নিয়েই তৈরি হয়েছে 'অপারেশন সুন্দরবন'।

জানা গেছে, সুন্দরবনে র‌্যাবের এই সাফল্যগাঁথার রোমাঞ্চকর উপাখ্যান জনসাধারণের সামনে তুলে ধরার জন্য ‘র‌্যাব ওয়েলফেয়ার কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড’ এর প্রযোজনায় চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করা হয়েছে। এতে সুন্দরবন ও তৎসংলগ্ন এলাকার উপকূলীয় অঞ্চলের জীবন-জীবিকা ও জীববৈচিত্রকেও প্রধান্য দেওয়া হয়েছে। চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছেন ‘ঢাকা অ্যাটাক’ খ্যাত পরিচালক দীপঙ্কর দীপন। ছবিটির নির্মাণে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করা হয়েছে। 

এসময় বেনজীর আহমেদ বলেন, সুন্দরবনে অপারেশন চালিয়ে জলদস্যুদের হাত থেকে মৎস্যজীবী, বনজীবী ও বাওয়ালীসহ ওই দুর্গম এলাকার অসহায়দের রক্ষা করা র‍্যাবের জন্য নিঃসন্দেহে একটা চ্যালেঞ্জ ছিলো। সাধারণ মানুষের জানমালের নিরাপত্তায় র‍্যাব যে ধরনের সাহসী ভূমিকা রেখেছিল সেই প্রয়াসের চিত্রায়ণ 'অপারেশন সুন্দরবন'। 
চলচ্চিত্রটির লভ্যাংশ ভিকটিমদের সহায়তা, সাবেক জলদস্যুদের পুনর্বাসনসহ উপকূলীয় অঞ্চলের জনকল্যাণে ব্যয় করা হবে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন র‍্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্ণেল তোফায়েল মোস্তফা সরওয়ার, লে. কর্ণেল আশিক বিল্লাহ ( মুখপাত্র র‍্যাব লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং), র‍্যাবের ডেপুটি ডিরেক্টর (মিডিয়া উইং), রইসুল আজম মনিসহ র‍্যাব ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।