রবিবার, ০২ অক্টোবার ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯

কবিতা

July 15, 2021, 11:30 p.m.

নিউইয়র্ক সিটিতে বসবাসকারী এইচ বি রিতার তিনটি কবিতা
নিউইয়র্ক সিটিতে বসবাসকারী এইচ বি রিতার তিনটি কবিতা
কবিতার প্রতীকী - ছবি: ভোরের আলো।

মানুষ গৃহহীন
এইচ বি রিতা


নিউইয়র্কের রাস্তায় কয়টা পাখী উড়ছিল।
যদিও আমি হাঁটছিলাম, তবু
স্প্রিংয়ের বাতাসে রাস্তার ধারে টিউলিপগুলো
হেলে দোলে নড়ছিল
তীব্র রোদে সোনালী আলোর ঝলকানিও যে,
কাউকে অন্ধ করে দিতে পারে, জানা ছিল না।
পথ হারাতে দেখে একদিন ক্যাপলেন বলেছিল,
কালো গগলসটা পড়ো
ঠিকঠাক মত লেগেছে তো?
এই
দেখো! কাঁদছো কেন?
আজকাল প্রায়ই ভুল হয়
ভুলে যাই কত কথা!
রাস্তার ওপাশ থেকে একজন গৃহহীন লোক
বিস্ময় নিয়ে দেখছে,
গগলস্ চোখে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে একজন মানুষ
ক্ষুধা পেটে হাঁটছে
লোকটা ভাবছে,
এখানে ‘মানুষ’ও গৃহহীন হয়।

 

অসুখী শহর
এইচ বি রিতা


শহরটির আজ অসুখ করেছে
সংক্রমিত ‘কিছু একটা’
স্বৈরী বাতাস, দীপ্তিময় ভোর
অস্তমিত বিকালে ধোঁয়া উঠা চায়ের কাপে
হু হু করে উড়ছে ‘কিছু একটা!’
বিশেষায়িত দৃষ্টিতে বিষক্রীয়া তড়িৎ ঢুকে যাচ্ছে,
আইন্সটাইন মৃত মগজে।
এ অসুখ ফুসফুস প্রদাহ নয়,
চিন্তা, বুদ্ধি, উদ্ভাবনীশক্তি, সেরেব্রামের সবটুকু খায়
এ অসুখ আমার-তোমার বোধটুকু খায়।
এ শহর আজ রাবণের বেশে;
স্বচ্ছ নিঁপুন চোখগুলো খায়।
এ শহরে আজ আকাশ নেই
সন্ধ্যার বাতাসে উড়ে যাওয়া শালিক নেই
পোশাকহীন শহরের গায়ে, শ্লীলতার সংজ্ঞা নেই
এখানে উঠোন জুড়ে কুয়াশার আড়ালে কেবল,
জহুরী চাঁপা অযতেœ গোঙ্গায়।
এ শহরে আজ কিছু নেই।

 

দায়
এইচ বি রিতা 


বেঁচে থাকার মানে খুঁজে ফেরা মানুষ
গন্তব্য হারায়
পথে যেতে যেতে ভাবুক মন
ঝরে পড়া পাতাটিও কুড়ায়। 
বাসস্টপে যাত্রীবিহীন গাড়িটি দাঁড়ায়
ধরতে গেলেই
আকাশের বুকে মেঘ ডেকে যায়
শেষে, পকেটের পাতাটি উড়ে যায়। 
পোড় খাওযা মানুষ রুটির বদলে
কাগজ চিবিয়ে খায়
জীবনের খুঁজে 
ছেঁড়া বুকে বেঁচে থাকা কার দায়
এভাবেই ক্রমশ; 
একদিন সব বিলুপ্ত হয়ে যায়। 
কে নেয় দায়
কার বুকে এত সাহস
রক্ত চুষে খায়।


এইচ বি রিতা, কবি, প্রাবন্ধিক,কলামিস্ট, সাংবাদিক ও শিক্ষক, বর্তমান নিবাস কুইন্স, নিউইয়র্ক।