শনিবার, ২১ মে ২০২২, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

অনলাইন ডেস্ক

May 11, 2022, 10:48 p.m.

৫ নারী ক্রিকেটারদের অভিযোগ
৫ নারী ক্রিকেটারদের অভিযোগ
সংগৃহীত। - ছবি:

মেয়েদের প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের ৫ নারী ক্রিকেটার পাওনা টাকা না পাওয়াতে বিসিবির কাছে লিখিত অভিযোগ করেছে। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বরাবরে এই লিখিত আবেদন করেছেন শায়লা শারমিন, তাহিন তাহেরা, তাজিন আক্তার, রূপা রায় ও ইতি মন্ডল।

মেয়েদের সর্বশেষ প্রিমিয়ার লিগ অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৯ সালে। ৫ ক্রিকেটারের পাওনা সেই মৌসুমের। এদিকে আগামী ২০ মে থেকে শুরু হতে যাচ্ছে চলতি মৌসুমের লিগ। আসন্ন লিগকে সামনে রেখেই ৫ নারী ক্রিকেটার তাদের পাওনা বুঝে পেতে বিসিবির দারস্থ হয়েছে। এ ব্যপারে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, আমরা ক্রিকেটারদের কাছ থেকে তাদের পাওনা সংক্রান্ত একটা লিখিত অভিযোগ পেয়েছে।

অভিযোগ পাওয়ার পর আমরা সংশ্লিষ্ট ক্লাবের সঙ্গে কমিউনেট করেছি টেলিফেনে। আবার লিখিত চিঠি দিয়েও বিষয়টি সামনের লিগ শুরুর আগেই দ্রুতই সমাধান করতে বলেছি। আশা করি সমাধান হয়ে যাবে। শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের চেয়ারম্যান কে এম শহীদুল্লার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তকে পাওয়া যায়নি। কথা হয় দলের ম্যানেজার জাকির আহমেদের সঙ্গে। ঢাকাপ্রকাশকে তিনি বলেন, গত মৌসুমে আমরা বড় বাজেটের দল গড়েছিলাম।

কিন্তু দূভার্গ্যবশত প্রথমে আমাদের (শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ। শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রকে এই সংগঠনই পরিচালনা করে থাকে) মহাসচিব কয়েস ভাই (মাহমুদ-উস-সামাদ চৌধুরী এমপি) করোনায় মারা যান। পরে মারা যান চেয়ারম্যান রাকিব (রকিবুর রহমান) ভাই। অল্প সময়ের ব্যবধানে এই দুই জন মারা যাওয়াতে আমরা অর্থনৈতিকভাবে সমস্যা পড়ে যাই। কারণ এই দুই জনই আমাদের অর্থনৈতিকভাবে সাপোর্ট দিতেন।

তারপরও আমরা ধীরে ধীরে অনেকের বকেয়া টাকা পরিশোধ করেছি। যে ৫ জনের টাকার বিষয়টি এসেছে সেটিও আমরা ৭ থেকে ১০ দিনের মাঝে পরিশোধ করে দিবো। এরপর কারো ইচ্ছে হলে আমাদের দলে খেলবে।’ জানা গেছে এই ৫ জনের মোট টাকা সর্বোচ্চ ৩ লাখের মতো হবে। এর মাঝে সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকা পাবে কেউ। আর সর্বনিম্ন ২৫/৩০ হাজার টাকা।

এদিকে আগামী মৌসুমের জনৗ শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র পৃষ্ঠপোষকও পেয়ে গেছে। ঢাকা উত্তেরের মেয়র আতিকুল ইসলামই সেই পৃষ্ঠপোষক ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। শেখ রাসেলকে পৃষ্টপোষকতা করবে পোষাক শিল্পি তৈরি সবচেয়ে বড় প্রতিষ্ঠান বিজেএমইএ।