শনিবার, ২১ মে ২০২২, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

অনলাইন ডেস্ক

May 13, 2022, 9:47 p.m.

গলাচিপায় চুরির অপবাদে কিশোরকে গাছে বেঁধে নির্যাতন
গলাচিপায় চুরির অপবাদে কিশোরকে গাছে বেঁধে নির্যাতন
নির্যাতনের শিকার কিশোর মুন্না (১৬) ওই গ্রামের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের শাহজাহান কমান্ডারের ছেলে। - ছবি:

পটুয়াখালীর গলাচিপায় চুরির অপবাদ দিয়ে এক কিশোরকে শিকলে বেঁধে অমানবিক নির্যাতনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এদিকে নির্যাতনের পর থেকে ওই কিশোর নিখোঁজ রয়েছে বলে পরিবারের অভিযোগ থাকলেও পুলিশের দাবি সে নিজেই পালিয়ে গেছে। 

গত ৯ মে উপজেলার গলাচিপা সদর ইউনিয়নের বোয়ালিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার কিশোর মুন্না (১৬) ওই গ্রামের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের শাহজাহান কমান্ডারের ছেলে। প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, কিশোর মুন্নাকে একটি গাছের সাথে লোহার শিকলে বেঁধে রাখা হয়েছে। এর আগে তাকে বেধরক মারধর করা হয়েছে বলে জানান গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ এমআর শওকত আনোয়ার ইসলাম। 

মুন্নার পরিবারের অভিযোগ, গত ৯ মে থেকে ১১ মে মধ্যরাত পর্যন্ত দফায় দফায় মুন্নার উপর এ নির্যাতন চালানো হয়। তবে ১১ মে রাতের পর থেকে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

মুন্নার সৎ মা হাসিনা বেগম বলেন, পরিবারের সবাই ঢাকায় থাকলেও মুন্না বাড়িতে থাকতো। খবর পেয়ে আমরা বাড়িতে এসেছি। আমার ছেলেকে মিথ্যা টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে ধরে নিয়ে দফায় দফায় তিন দিন ধরে স্থানীয় হজরত আলী, ফেরদৌস, মমতাজ এবং তানিয়া নির্যাতন করে। এর পর থেকে আমার ছেলেকে খুঁজে পাচ্ছি না।
 
এদিকে এ বিষয়ে গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ এমআর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, ঘটনার পর থেকে মুন্না তার মামার কাছে জিম্মায় ছিলো। পরে সেখান থেকে মুন্না কোথাও পালিয়ে যায়। তিনি আরও বলেন, এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তিন জনকে আমরা আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। অন্য অভিযুক্তদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।