শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭

অনলাইন ডেস্ক

March 10, 2020, 8:26 p.m.

করোনা: ভারতে আক্রান্ত আরও ৯ জন, মোট ৫৬
করোনা: ভারতে আক্রান্ত আরও ৯ জন, মোট ৫৬
করোনাভাইরাস - ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বের শতাধিক দেশে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে ভারতে আরও ৯ জনকে সংক্রমিত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে এই ভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৬ জনে। করোনাভাইরাসে সংক্রমিত নতুন ৯ জন দেশটির কেরালা এবং কর্ণাটকে শনাক্ত হয়েছেন বলে এনডিটিভি জানিয়েছে।
এনডিটিভি বলছে, কেরালা এবং কর্ণাটকে গতকাল মঙ্গলবার আরও ৯ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিত হয়েছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। করোনাভাইরাসে সংক্রমণের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় কেন্দ্রীয় সরকার বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

এদিকে, করোনাভাইরাসের বিপর্যয়ের মুখোমুখি ইরান থেকে ৫৮ ভারতীয়কে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। দেশটিতে হাজার হাজার ভারতীয় আছেন; তাদের ফিরিয়ে আনতে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার বিশেষ বিমান পাঠানোর ব্যবস্থা করেছে।

মঙ্গলবার সকালের দিকে দিল্লির গজিয়াবাদে ইরান থেকে ভারতীয়দের ফিরিয়ে আনার কাজে নিয়োজিত দেশটির বিমান বাহিনীর বিমান সি-১৭ গ্লোবমাস্টার অবতরণ করে। এর কিছুক্ষণ পর ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এক টুইট বার্তায় বলেন, মিশন সম্পন্ন। এখন অন্যদের ফিরিয়ে আনা হবে বলে টুইটে জানান তিনি।
গত তিনদিনে ভারতের কেরালায় নতুন করে অন্তত ১২ জনকে করোনা সংক্রমিত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। কেরালায় করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়তে থাকায় রাজ্য সরকার আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত সব সিনেমা হল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে। করোনা সংক্রমিতদের সংস্পর্শে আসা কেরালার ২৭০ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে। স্থানীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, তাদের মধ্যে অন্তত ৯০ জন সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছেন।

কেরালার স্বাস্থ্যন্ত্রী কেকে শৈলাজা বলেছেন, রাজ্যের প্রায় এক হাজার ১১৬ জনকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। এছাড়া কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন আরও ৯৭৬ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১৪৯ জন। তাদের অনেকের মধ্যে করোনার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে। এতে দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩ হাজার ১৩৬ জনের প্রাণহানি ঘটেছে এবং আক্রান্ত হয়েছেন ৮০ হাজার ৭৫৭। করোনায় চীনের পর এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে ইতালিতে।

দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৬৩ জনে, আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৯ হাজার ১৭২ জন।