মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬

নিজস্ব প্রতিবেদক

March 13, 2020, 9:41 p.m.

ভারতে কোয়ারেন্টাইনে রাখা  ২৩ বাংলাদেশি ফিরছেন কাল
ভারতে কোয়ারেন্টাইনে রাখা  ২৩ বাংলাদেশি ফিরছেন কাল
করোনাভাইরাস - ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে ভারতের রাজধানী দিল্লিতে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার পর ২৩ বাংলাদেশি শনিবার দেশে ফিরছেন। বৃহস্পতিবার তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে এবং তাদের কেউই করোনায় আক্রান্ত নন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

বার্তা সংস্থা ইউএনবি জানিয়েছে, ২৩ বাংলাদেশির অধিকাংশই শিক্ষার্থী এবং তাদের সঙ্গে একটি ছোট্ট বাচ্চাসহ একটি পরিবার রয়েছে। শনিবার বিকেলে ইন্ডিগো এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তারা ঢাকার উদ্দেশে দিল্লি ত্যাগ করবেন। এবং তাদের আনতে পুরো খরচ বহন করবে বাংলাদেশ সরকার।
এক শিক্ষার্থী ফোনে ইউএনবিকে জানিয়েছেন, ‘আমরা গতকাল শুক্রবার হেলথ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেয়ে যাব এবং আশা করছি, শনিবার ঢাকার উদ্দেশে দিল্লি ত্যাগ করতে পারব।’

ঢাকায় অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাস জানিয়েছে, ২৭ ফেব্রুয়ারি ভারতীয় বিমান বাহিনীর একটি বিশেষ বিমানে অন্যান্য ভারতীয়দের সঙ্গে এই ২৩ বাংলাদেশিকে উহান থেকে ফিরিয়ে আনা হয়। এরপর তাদের দিল্লিতে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়। বর্তমানে বিশ্বের ১২৪টি দেশ ও অঞ্চলে করোনার প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৯৭৩ জন।

চীনে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে মাত্র চারজন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন একজন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ১৭০ জন।

তবে করোনার তা-ব চলছে ইউরোপের দেশগুলোতে। ইতালিতে একদিনে মারা গেছেন আরও ১৮৯ জন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ১৬ জন, আক্রান্ত ১৫ হাজার ১১৩ জন। স্পেনে একদিনে নতুন করে ৮৬৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ৩১ জন।
এ পর্যন্ত ৩১২ বাংলাদেশি নাগরিককে চীন থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। ১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইটে তাদের ফিরিয়ে আনা হয়। বাকিদেরও ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া চলছে। দেশে ফিরে আসতে তারা নাম নিবন্ধন করেছেন।