শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

হায়াতুজ্জামান মিরাজ,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি

March 29, 2020, 8:09 p.m.

আমতলীতে জীবাণুনাশক ছিটাচ্ছে পৌরসভাসহ বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী সংস্থা
আমতলীতে জীবাণুনাশক ছিটাচ্ছে পৌরসভাসহ বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী সংস্থা
সচেতন করতে জীবাণুনাশক স্প্রে, হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধৌত করা ও লিফলেট বিতরণ - ছবি:

করোনাভাইরাস থেকে আমতলী পৌরবাসীকে নিরাপদে রাখতে পৌর শহরের রাস্তাঘাট ও যানবাহনে জীবাণুনাশক ছিটানো অব্যাহত রেখেছে আমতলী পৌরসভাসহ বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী সংস্থা। 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানাগেছে, গত বৃহস্পতিবার থেকে আমতলী পৌরশহরসহ ও উপজেলার বিভিন্ন স্থানের রাস্তাঘাট, যানবাহন ও বাজারগুলোতে জীবাণুনাশক ছিটানো কার্যক্রম শুরু করেছে। যা রবিবার পর্যন্ত অব্যাহত আছে। আমতলী পৌরসভার উদ্যোগে পৌরশহরের ৪টি স্পটে জনসাধারনের হাত ধোয়ার জন্য পানির কলের ব্যবস্থা করেছে। শহরের রাস্তাঘাট ও যানবাহনে জীবাণুনাশক ছিটানো কার্যক্রর চলমান আছে। এছাড়া বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, ফায়ার সার্ভিস, বাংলাদেশ স্কাউট, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, রিপোর্টার্স ইউনিটি, ব্রাক ও সময় নামের একটি সংস্থা জনসাধারনের মাঝে মাস্ক, হাত ধোয়ার জন্য সাবান, হ্যান্ডওয়াস ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ ও করোনা ভাইরাস সম্পর্কে জনসাধারণকে সচেতন করতে ব্যানার, ফেস্টুন, মাইকিং, উঠান বৈঠক ও লিফলেট বিতরণ করেছেন। 

জেলা পরিষদ ও ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে আমতলী পৌরসভাসহ উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ এলাকার বিভিন্ন স্পটে সাধারণ মানুষের হাত ধোয়ার জন্য পানির ড্রাম ও পানির কল স্থাপন করেছেন।

কুকুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বোরহান আহম্মেদ মাসুদ তালুকদার বলেন, আমার ইউনিয়নের সাধারণ মানুষদের সচেতন করতে মাইকিং ও হাত ধোয়ার ব্যাবস্থা করেছি।

জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ আবুল বাশার নয়ন বলেন, করোনা সচেতনতার অংশ হিসেবে উপজেলার একশ টি স্পটে হাত ধোয়ার জন্য পানির ড্রাম ও পানির কল স্থাপন করা হয়েছে।

রেড ক্রিসেন্টের সেচ্ছাসেবী মোঃ ইমরান হোসেন বলেন, গত দুই দিন ধরে আমতলী পৌরসভাসহ উপজেলা বিভিন্ন হাটবাজারে জীবাণুনাশক স্প্রে করতেছি। 

স্কাউট সদস্য মাসুম ও বেল্লাল বলেন, করোনা সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে জীবাণুনাশক স্প্রে, হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধৌত করা ও লিফলেট বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করছি।

আমতলী পৌরসভার মেয়র মোঃ মতিয়ার রহমান বলেন, আমতলী পৌরসভার প্রতিটি সড়কে জীবাণুনাশক ছিটানো হচ্ছে। পৌরসভার প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় যেখানে জীবাণু থাকার সম্ভাবনা রয়েছে সেখানেই স্প্রে করা হবে।  

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনিরা পারভীন বলেন, সারা বিশ্বে করোনাভাইরাসের যে প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে, তা থেকে আমাদের রক্ষায় প্রয়োজন সচেতনতা। জনসচেতনতায় প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, জনপ্রতিনিধি, গণমাধ্যমকর্মীসহ বিভিন্ন সংগঠন নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি আরো বলেন, উপজেলা বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ন স্থানগুলোতেও জীবাণুনাশক স্প্রে করা হবে।