বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

অনলাইন ডেস্ক

April 14, 2020, 10:17 p.m.

অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত আইপিএল
অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত আইপিএল
সংগৃহীত - ছবি:

১৫ এপ্রিল যে আইপিএল শুরু করা যাচ্ছে না, এটা নিশ্চিতই ছিল। অবশেষে, ভারত সরকার যখন দেশব্যাপি লকডাউনের মেয়াদ ৩ মে পর্যন্ত ঘোষণা করলো, তখন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআইও অনির্দিষ্টকালের জন্য আইপিএল স্থগিত ঘোষণা করে দিলো। এ বছরের আইপিএল যে আর মাঠে গড়াচ্ছে না, সে সম্ভাবনাও উজ্জ্বল হয়ে গেলো।

২৯ মার্চ শুরু হওয়ার কথা ছিল আইপিএলের তেরোতম আসর। কিন্তু করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে সারা বিশ্বের মত ভারতেও সমস্ত খেলাধুলা স্থগিত ঘোষণা করা হয়। যার জেরে আইপিএল পিছিয়ে দেয়া হয় ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত। এর মধ্যেই ভারতে ক্রমেই থাবা বড় করতে চলেছে করোনা। প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্ত এবং মৃত্যুর মিছিল। সে কারণে, ধারণাই ছিল আইপিএল অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত ঘোষণা হতে পারে। শেষ পর্যন্ত সেটাই হলো।

প্রথমে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছিল ভারত সরকার। কিন্তু কোথায় কি, করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে যায়। এরই মধ্যে পশ্চিমবঙ্গসহ বেশ কিছু রাজ্যে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করা হয়। সুতরাং, আইপিএলর ভবিষ্যৎও অনিশ্চিত হয়ে পড়ে।

মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানিয়ে দেন, আগামী ৩মে পর্যন্ত দেশজুড়ে চলবে লকডাউন। ততদিন পর্যন্ত রেল-বিমানসহ সমস্ত পরিসেবা বন্ধ। সুতরাং, বিদেশি তারকাদের আগমন সম্ভব নয়। এমনকি কোনোভাবেই ম্যাচ আয়োজন সম্ভব নয়। সুতরাং, অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত।

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলিও দিন দুয়েক আগে সে ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘পুরো পরিস্থিতির উপর আমরা নজর রাখছি। এই মুহূর্তে কিছু বলা সম্ভব নয়। আর বলার কিছু নেইও। বিমান বন্ধ, অফিস বন্ধ, মানুষ গৃহবন্দি। কেউ কোথাও যেতে পারছে না। মনে হচ্ছে, মে’র অর্ধেক পর্যন্ত এই অবস্থাই থাকবে। ক্রিকেটাররা কিভাবে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গা যাবে? খুব স্বাভাবিকভাবেই বোঝা যাচ্ছে, আইপিএল কেন এখন কোনোরকম স্পোর্টস ইভেন্টই আয়োজন সম্ভব নয়।’

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সূত্রে জানা যায়, ৩ মে পর্যন্ত লকডাউন চলবে শোনার পরই অনির্দিষ্টকালের জন্য আইপিএল স্থগিত রাখার কথা ঠিক করেন কর্মকর্তারা। আপাতত কোনও নতুন দিনক্ষণও ঘোষণা করা হচ্ছে না। পরিস্থিতি বুঝেই পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।