বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

April 17, 2020, 10:07 p.m.

মহামারির মধ্যে খেলাধুলা আয়োজন করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র!
মহামারির মধ্যে খেলাধুলা আয়োজন করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র!
ক্রীড়া ডেস্ক। - ছবি: সংগৃহীত।

করোনা মহামারির কারণে সারা বিশ্বই এখন বলতে গেলে ঘরবন্দী। তবুও এর মধ্যে প্রায় দেড় লাখ মানুষ মৃত্যু বরণ করেছে। আক্রান্ত প্রায় ২২ লাখ। সারা বিশ্বের ২১০টি দেশ এবং অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতি এই ভাইরাস।

এমন পরিস্থিতিতে সারা বিশ্বেরই সমস্ত খেলাধুলা বন্ধ রয়েছে। অনেক টুর্নামেন্ট বাতিল কিংবা অনেকগুলো স্থগিত করা হয়েছে এক বছর অথবা অনির্দিষ্টকালের জন্য।

করোনার কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ দেশ এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয় গেছে ৩৫ হাজার। সর্বশেষ একদিনেই মৃত্যুবরণ করেছে সাড়ে ৪ হাজারের বেশি মানুষ।

এমন পরিস্থিতিতেও অর্থনীতি বাঁচাতে তিন ধাপে লকডাউন তুলে দিতে চান যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সে সঙ্গে দেশটির মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হেলথ অ্যান্ড ইনফেকসাস ডিজিজের প্রধান কর্মকর্তা এবং বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থোনি ফাউসি জানিয়ে দিয়েছেন, বিশেষ ব্যবস্থায় সেখানে পেশাদার খেলাধুলা শুরু করা যেতে পারে। তবে সেটা একেবারে ফাঁকা স্টেডিয়ামে।

করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট মহামারিতে যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে স্বাস্থ্য বিভাগে প্রধান সমন্বয়কারীর ভূমিকা পালন করছেন। তিনি বলেন, ‘রিলায়েবল অ্যান্টি বডি টেস্টিং এবং খুব দ্রুত ফল পাওয়ার কারণেই খেলাধুলাকে মাঠে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।’

ফাউসি যুক্তরাষ্ট্রের স্ন্যাপচ্যাট শো ‘গুডলাক আমেরিকা’ অনুষ্ঠানে কথা বলতে গিয়েই দ্রুত খেলাধুলা আয়োজনের বিষয়টি জানান। তিনি বলেন, ‘এভাবে খেলা আয়োজনের একটা পথ বের করা যেতে পারে। কেউ স্টেডিয়ামে আসতে পারবে না। অ্যাথলেট তথা খেলোয়াড়দের রাখা হবে বড় কোনো হোটেলে। যেখানে আপনি খেলতে চান সেই এলাকায়।’

তিনি আরো বলেন, ‘তাদেরকে (খেলোয়াড়দেরকে) খুব ভালোভাবে রাখা যায়। তবে, তেমনটা হলে অ্যাথলেটদের প্রতি সপ্তাহেই করোনা টেস্ট করতে হবে। শুধু এটা নিশ্চিত করতে হবে যে, তারা কোথাও থেকে যেন আক্রান্ত না হয়। কারণ একজনও কোনোভাবে আক্রান্ত হোক আর ড্রেসিংরুমে সতীর্থ কিংবা বাড়িতে পরিবারের সদস্যদের মধ্যে করোনা ছড়িয়ে দিক- তা আমরা চাই না।’

আমেরিকার দ্য ন্যশনাল বাস্কেটবল অ্যাসোসিয়েশনও প্রায় একই চিন্তা করছে। কারণ, তারা ২০১৯-২০ মৌসুমটা শেষ করতে চায়। এ কারণে তারা পুনরায় লাস ভেগাস এবং বাহামায় মৌসুমের বাকি খেলাগুলো আয়োজন করেতে চায়। মার্চের ১১ তারিখ থেকেই বন্ধ রয়েছে এনবিএর আসর।

টিজিএ’ও আশাবাদী ১১ জুন থেকে মাঠে খেলা গড়ানোর। যদিও খালি স্টেডিয়ামে আয়োজন করতে চায় তারা। ২০২০ সালের মেজর লিগ বেজবল শুরু হওয়ার কথা ছিল ২৬ মার্চ থেকে। তারা চিন্তা করছে, কত দ্রুত মাঠে বল গড়ানো যায় আবার।