বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

অনলাইন ডেস্ক

May 17, 2020, 10:28 p.m.

খোকনের ঘনিষ্ঠ ২ কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত করলেন তাপস
খোকনের ঘনিষ্ঠ ২ কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত করলেন তাপস
মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। - ছবি:


দায়িত্ব নেয়ার পরদিনই ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) দুই শীর্ষ কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত করেছেন মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। দুর্নীতির বিরুদ্ধে নিজের শক্ত অবস্থান ঘোষণার পরই এমন ব্যবস্থা নিলেন নবনির্বাচিত এ মেয়র।

চাকরিচ্যুত ওই দুই কর্মকর্তা হলেন অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আসাদুজ্জামান ও প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা (চলতি দায়িত্ব) ইউসুফ আলী সরদার। তারা সাবেক মেয়র সাঈদ খোকনের ঘনিষ্ঠ হিসেবে নগর ভবনে পরিচিত ছিলেন।

রবিবার সন্ধ্যায় ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত সচিব) শাহ মো. এমদাদুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ‘যথাযথ বিধান মতেই দুই কমকর্তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ যে কাউকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দিতে পারে।’

ডিএসসিসির সচিব আকরামুজ্জামান বলেন, ‘দুজন কর্মকর্তাকে চাকরি থেকে অপসারণ করা হয়েছে সিটি করপোরেশন আইন মোতাবেক, করপোরেশন যদি মনে করে যে কাউকে চাকরি থেকে বাদ দেওয়া দরকার, সে ক্ষেত্রে তিন মাসের বেতন দিয়ে তাকে বিদায় করে দিতে পারে। এ দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অনেক অভিযোগ রয়েছে।’

ডিএসসিসির একাধিক কর্মকতা জানান, প্রকৌশলী মো. আসাদুজ্জামান ও ইউসুফ আলী সরদার ছাড়াও মেয়র খোকনের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত এবং নানা অনিয়মে অভিযুক্ত সংস্থাটির তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. বোরহান উদ্দিন, খায়রুল বাকের, নির্বাহী প্রকৌশলী তানভির আহমেদ, সহকারি সচিব আরশাদুল হক, রাজস্ব কমকর্তা আব্দুল কুদ্দুসসহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে বর্তমান প্রশাসন ব্যবস্থা নিতে পারে। 

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে চাকরিচ্যুত ইউসুফ আলী সরদার বলেন, ‘এ বিষয়ে এখনো কোনো কাগজপত্র পাইনি। তবে শুনেছি আমাকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। করপোরেশন যা ভালো মনে করে তা করতে পারে। আমার কোনো বক্তব্য নেই।’

প্রকৌশলী মো. আসাদুজ্জামান রবিবার রাতে বলেন, ‘সন্ধ্যার পর চাকরিচ্যুত করার কাগজ পেয়েছি। সিটি করপোরেশনে দীর্ঘ সময় কাজ করে চেষ্টা করেছি সংস্থার জন্য ভালো কিছু করতে। এখন কর্তৃপক্ষ যা সঠিক মনে করেছে তা-ই করেছে। আমার আর কী করার আছে।’