শুক্রবার, ২৭ নভেম্বার ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

অনলাইন ডেস্ক

July 23, 2020, 6:47 p.m.

টিভি দেখা কমালে কমবে মৃত্যু ঝুঁকি
টিভি দেখা কমালে কমবে মৃত্যু ঝুঁকি
সংগৃহীত। - ছবি:

স্ক্রিন টাইম তথা টিভি দেখা বা অন্য কোনো মাধ্যমে ভিডিও দেখার অভ্যাস কমিয়ে আনতে পারলে মৃত্যু ঝুঁকি অনেকটা কমিয়ে আনা যায় বলে নতুন এক গবেষণা প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বিবিসি।

এ ব্যাপারে দীর্ঘ সময় নিয়ে স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো বিশ্ববিদ্যালয়ের করা গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, দৈনিক টেলিভিশন দেখা অন্তত দুই ঘণ্টার মধ্যে নিয়ে আসতে পারলে মৃত্যুর হার, বিশেষ করে হৃদ্‌যন্ত্রের সমস্যা সংক্রান্ত মৃত্যুর শঙ্কা অনেকটাই কমিয়ে আনা যেতে পারে।

২০০৬-২০১৮ এই বারো বছরে ৩৭ থেকে ৭৩ বছর বয়সীদের ওপর গ্লাসগো বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব হেলথ অ্যান্ড ওয়েলবিং বিভাগের চালানো এই গবেষণায় বয়স্কদের টিভি দেখার সময় কমিয়ে আনার আহ্বান জানানো হয়েছে।

তাতে বলা হয়েছে, যাদের টিভি দেখার সময় দৈনিক ২ ঘণ্টা সীমাবদ্ধ ছিল তাদের মধ্যে সার্বিক মৃত্যুর ঝুঁকি ৫.৬২ শতাংশ কম দেখা গেছে। আর হৃদ্‌যন্ত্রের সমস্যা সংক্রান্ত মৃত্যুর ঝুঁকি কম দেখা গেছে ৭.৯৭ শতাংশ।

গবেষণায় টিভি দেখা বলতে শুধু গতানুগতিক টিভির পর্দায় চোখ রাখাই নয় মোবাইল ফোনে ভিডিও দেখাও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

এই গবেষণা দলের নেতৃত্ব দেওয়া ড. হামিশ ফস্টার জানিয়েছেন, খুব বেশি টিভি দেখা এবং বসে বসে জীবনযাপন খারাপ স্বাস্থ্যের দিকে ঠেলে নিতে পারে।

ফোস্টার বলেন, “আমাদের গবেষণায় দেখা গেছে, টিভি দেখা কমানো বাজে স্বাস্থ্য পরিস্থিতিকে ধীর বা রুখে দেওয়া যেতে পারে।”

তবে ঠিক কতটা সময় টিভি দেখা স্বাস্থ্য উপযোগী এ ব্যাপারে আরও গবেষণার দরকার আছে বলে জানান ফোস্টার, “বিস্তারিত ব্যাপারগুলো বুঝতে এবং এ ব্যাপারে পরামর্শ দিতে আরও গবেষণা দরকার।”

তবে অস্বাস্থ্যকর নাশতা খাওয়া ও নিম্ন আর্থসামাজিক অবস্থা টিভি দেখার সময় ও বাজে স্বাস্থ্যের সঙ্গে সম্পর্কিত বলে গবেষণায় বলা হয়েছে। টিভি দেখার পরিবর্তে এই সময়ে হাঁটাহাঁটি করার সম্ভাব্য উপকারিতার দিকগুলোও পর্যবেক্ষণ করেছেন গবেষকেরা।

বিবিসি