মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বার ২০২০, ৮ আশ্বিন ১৪২৭

নিজস্ব প্রতিবেদক

July 27, 2020, 11:21 p.m.

বরিশালে মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম-দুর্লভ দেশীয় মাছ ফিরিয়ে আনা হয়েছে
বরিশালে মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম-দুর্লভ দেশীয় মাছ ফিরিয়ে আনা হয়েছে
সোমবার বিকেল ৩টায় বরিশালে বাবুগঞ্জ উপজেলার ঐহিত্যবাহী দুর্গাসাগর - ছবি:

বরিশালে মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী শ.ম. রেজাউল করিম বলেছেন কৃত্রিম ও বৈজ্ঞানিক উপায়ে ৬৫ প্রজাতির দেশীয় দুর্লভ মাছের প্রজাতি ফিরিয়ে আনা হয়েছে। বরিশালে অনুষ্ঠিত মৎস্য সপ্তাহের সমাপনি অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন মন্ত্রী। মন্ত্রী দুর্গাসাগরে বিভিন্ন প্রজাতির ১ হাজার কেজি মাছের পোনা অবমুক্ত করেন। 

সোমবার বিকেল ৩টায় বরিশালে বাবুগঞ্জ উপজেলার ঐহিত্যবাহী দুর্গাসাগর এলাকায় মৎস্য সপ্তাহের সমাপনী দিন উপলক্ষ্যে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।

দিঘিতে মাছের পোনা অবমুক্ত করে ওই কথা বলেন মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট স. ম রেজাউল করিম। একই সঙ্গে মাছের পোনা অবমুক্ত করার মধ্য দিয়ে গত ২১ জুলাই শুরু হওয়া মৎস্য সপ্তাহের সমাপনীও করেন মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রী। 

বরিশালের জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার অমিতাভ সরকার, মৎস্য বিভাগের উপ-পরিচালক মো. আজিজুল হক, ইলিশ গবেষক ড. আনিছুর রহমান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবু সাঈদ, ইলিশ বিশেষজ্ঞ ড. বিমল চন্দ্র দাসসহ অন্যান্যরা। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, মাছ যে মানুষের আমিষের চাহিদা মেটায় এই বিষয়ে জনগণের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করা জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের অন্যতম লক্ষ্য। মৎস্য সম্পদকে আরও সমৃদ্ধ করার কাজ চলছে। দেশে উৎপাদিত মাছে দেশীয় চাহিদা পূরণ হয়েছে। এখন বিদেশে রপ্তানী করে বৈদেশিক মূদ্রা অর্জনের চেষ্টা করতে হবে। উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে নিষেধাজ্ঞাকালীন সময়ে মাছ নিধন বন্ধ করতে হবে। অব্যাহত নিধনের কারণে দেশীয় প্রজাতির মাছ প্রায় বিলুপ্ত হয়ে গিয়েছিলো। মৎস্য বিভাগ কৃত্রিম এবং বৈজ্ঞানিক উপায়ে ৬৫ প্রজাতির দেশীয় মাছ দুর্লভ অবস্থা থেকে সহজলভ্য করেছে। 

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।