সোমবার, ১৯ অক্টোবার ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭

নিজস্ব প্রতিবেদক

Sept. 19, 2020, 7:29 p.m.

বরিশালে রিক্সা-ভ্যান-ঠেলাগাড়ী শ্রমিকদের ৭ দফা দাবীতে মানববন্ধন
বরিশালে রিক্সা-ভ্যান-ঠেলাগাড়ী শ্রমিকদের ৭ দফা দাবীতে মানববন্ধন
আজ শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় নগরীর অশ্বিনী কুমার হলের সামনে মানববন্ধন । - ছবি:

বরিশালে ৭ দফা দাবী বাস্তবায়নের লক্ষ্যে রিক্সা-ভ্যান-ঠেলাগাড়ী শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন বরিশাল জেলা নেতৃবৃন্দ মানববন্ধনে সার্বিক সহযোগিতা করেছেন।

আজ শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় নগরীর অশ্বিনী কুমার হলের সামনে ওই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের সভাপতি মো. জামাল হোসেন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন বিশিষ্ট শ্রমিক নেতা অ্যাড. এ কে আজাদ, শ্রমিক নেতা আখতার রহমান সপ্রু, কবি অপূর্ব গৌতম, বিদ্যুৎ কর্মচারী নেতা জে কে মুকুল, দোকান কর্মচারী নেতা স্বপন দত্ত, দর্জি শ্রমিক নেতা তুষার সেন, শ্রমিক নেতা মো. রফিক বিশ্বাস, মো. মাহফুজ প্রমুখ।

 মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বরিশাল সিটি কর্পোরেশন এলাকায় দীর্ঘদিন যাবত রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে তাদের আগমন ঘটেছে। বস্তিতে ভাড়া বাসায় অত্যন্ত মানবেতর জীবন-যাপন করছে তারা। আর্থিক অনটন থাকায় পেটে যেমন ভাত জোটে না, তেমনি রোগ জড়তায় চিকিৎসা করতে পারছে না। এরপরও নিজেদেরকে গর্বিত মনে করেন। কারণ এই শ্রমিকরা পরোক্ষভাবে দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্প প্রতিষ্ঠান, অফিস আদালত পরিচালনায় এবং উন্নয়নে সহযোগী ভূমিকা পালন করছে। স্ব-স্ব উদ্যোগেই নিজের কর্মসংস্থান নিজেই করে নেয়।

তারা বলেন, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয়ের মাধ্যমে সরকারকে যেমন পরোক্ষভাবে কর দেস। তেমনি প্রতি বছর লাইসেন্স নবায়ন করে প্রত্যক্ষভাবে সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়নে ভূমিকা রাখছেন। বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়নের অংশীদার হয়েও তাদের অভাব অনটন ও সমস্যা সমাধানে সিটি কর্পোরেশনকে পাশে পাচ্ছেন না। বরিশাল সিটি কর্পোরেশন কর্তৃপক্ষ চালক লাইসেন্স ও রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ির মালিকানা লাইসেন্স নবায়ন করবে। তারা নবায়ন করতে চায়। তবে তাদের দাবিগুলে মেনে নিতে হবে।

তাদের দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে, বরিশাল শহরে রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ি চালকদের লাইসেন্স নবায়ন ফি বকেয়া মওকুফ করে হালনাগাদ করতে হবে এবং সুদমুক্ত নবায়ন করতে হবে।  বরিশাল শহরের সকল জড়াজীর্ণ রাস্তাঘাট মেরামত এবং প্রতি বছরের জুন-জুলাই মাসের মধ্যে রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ির ভাড়া নির্ধারণসহ যাত্রী ভাড়া নির্ধারণ করতে হবে। রিক্সা রাখার ৪২টি স্ট্যান্ড পুনঃ উদ্ধার ও টয়লেট নির্মাণ করতে হবে। বরিশাল রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের মাধ্যমে বরিশাল সিটি কর্পোরেশন এর মধ্যে লাইসেন্স নবায়নকৃত চালকগণের নিয়মিত রেশন দিতে হবে এবং চিকিৎসা ব্যয় সিটি কর্পোরেশনকে বহন করতে হবে। বরিশাল রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ি শ্রমিক ইউনিয়নের মাধ্যমে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনে বসবাসরত ষাটোর্ধ রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ি চালকদের বয়স্ক ভাতাসহ পেনশন স্কীমের আওতায় আনতে হবে। বরিশাল সিটি কর্পোরেশন হওয়ার পূর্বে বরিশাল পৌরসভার রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ি চালকদের একটি কল্যাণ তহবিল ছিল, সেটি পুনরায় চালু করতে হবে এবং সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ি চালকদের গ্রুপ বীমা চালু করা। বরিশাল সিটি কর্পোরেশন এর উদ্যোগে রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ি চালকদের ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়ার খরচ যাতে সিটি কর্পোরেশন বহন করতে পারে তার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে এবং বাসা ভাড়া নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে এবং চাল-ডাল সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতি রোধ করতে হবে। রিক্সা-ভ্যান-ঠ্যালাগাড়ি চালকেরা যাতে অহেতুক পুলিশী হয়রানীর শিকার না হয় তার ব্যবস্থা করতে হবে এবং মটর চালিত রিক্সাসহ অবৈধ কোন যানবাহন চলতে দেয়া যাবে না। 

বক্তারা আরও বলেন, বরিশাল শহর থেকে অবৈধ যানবাহন উচ্ছেদ করে যানজট মুক্ত করার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহবান জানানো হয়। এছাড়া রিক্সা-ভ্যান-ঠেলাগাড়ী শ্রমিকদের ৭ দফা দবীতে আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য শ্রমিকদের ইউনিয়নের পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।